কবিতা১৪ঃ- কুয়েতে বৈশাখী মেলা।

কুয়েতে বৈশাখী মেলা 
আব্দুর রহিম 
♡♡♡♡♡♡♡♡♡♡
কাঠ ফাটা রোদ এখনো পরেনি 
বসন্ত হাওয়া বয় ,
মরুর বুকে সবুজের সমোরহ
ভরে গেছে কিশালয় ।
কোথাও কোথাও সবুজের মাঠ
সবুজ বৃক্ষ ছায়া ,
স্মৃতি মন্থনে এনে দেয় যেন 
দেশের মাটির মায়া ।

শতো ব্যস্ততার মাঝে ও রাখি
হৃদয়ের দর্পণে ,
মিলে মিশে তাই স্বাগত জানাই
নবীন দিনের ক্ষনে ।
রিগাই পার্কে সুধীদের ডাকে
বৈশাখী মেলার ধুম ,
হরেক রকম পিঠা বানাতে 
কাড়িয়ে নিয়েছে ঘুম ।

বুবু ও ভাবীরা সুনিপুণ হাতে 
বানিয়েছে কতোনা পিঠা ,
আহা কি মজা পেট ভরে খাই 
লাগছে কতোনা মিঠা ।
ভাইরা বসেছে ভাবীরা বসেছে 
কতোনা পসরা লয়ে ,
রুবিনা বুবুর কানেকসন গারমেন্টস
কিনেছে মুগ্ধ হয়ে ।

বেলুন ফেস্টুনে মুগ্ধ করেছে 
খোকা খুকুর মন ,
দু-হাতে উড়িয়ে আনন্দ উৎসবে 
মেতেছে সারা ক্ষন ।
বাংলার নারী পরে লাল শাড়ি 
কেহ কেহ থ্রিপিস ,
মেলা অঙ্গনে বঙ্গ পরীরা
আসতে করেনি মিস ।

হেলে দুলে চলে কতো কথা বলে 
সখীদের কাছে পেয়ে ,
দুলাল দুলালী ছুটা ছুটি করে 
বৈশাখী গান গেয়ে ।
পালকি একতারা তৈজসপত্র যা ছিল 
ভুলু ভাইয়ের ঘরে ,
নিপুণ হাতে সাজিয়ে রেখেছে 
দর্শনে মুগ্ধ করে ।

কবিরা নিয়েছে কবিতা আর
শিল্পীরা গেয়েছে গান ,
মুগ্ধ হয়েছে দর্শক শ্রোতা
আনন্দে ভরেছে প্রান ।
নৃত্যের তালে কন্ঠ মিলিয়ে 
কতোনা গানের সুর ,
শতো কষ্টের মাঝে ও কেটেছে 
আনন্দে ভরপুর ।

কুয়েত 
26/04/2019
( আয়োজনে = বৈশাখী মেলা উদযাপন কমিটি ।
আহ্বায়ক - প্রোকৌশলী ফরিদ আহমেদ ,সদস্য সচিব রফিকুল ইসলাম ভুলু ।
সমন্বয় কারী - মোঃ আতাউল গনি মামুন, আব্দুল হাই ভূঁইয়া ,
সৈয়দ মোহাম্মদ মোজাহেদ সহ আরো অনেকেই ।
উদ্বোধন করেন - মান্যবর রাস্ট্রদূত জনাব এস এম আবুল কালাম সহ দূতাবাসের অনেক কর্মকর্তা বৃন্দ )